সোমবার ০১ জুন ২০২০

১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

স্পোর্টস ডেস্ক

এপ্রিল ২৭,২০২০, ০৮:২৮

এপ্রিল ২৭,২০২০, ০৮:২৮

যে কারণে ৩ বছর নিষিদ্ধ উমর আকমল

আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ধারা ভঙ্গের দায়ে পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান উমর আকমলকে তিন বছরের নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) এক টুইট বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পিসিবি।

পিসিবি জানায়, শুনানি শেষে সংস্থাটির শৃঙ্খলা কমিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি (অব.) ফজল-ই-মিরান চৌহান এই নিষেধাজ্ঞাদেশ দেন।

বিতর্কে জর্জরিত ক্যারিয়ারে বারবার নিয়ম ভেঙেছেন আকমল। মূলত এ কারণে দারুণ প্রতিভাবান হওয়ার পরও দলে থিতু হতে পারেননি কখনও।

তবে এবারের অভিযোগ ছিল বেশ গুরুতর। গত ২০ মার্চ আকমলের বিরুদ্ধে দুর্নীতি বিরোধী দুটি ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনে পিসিবি। গত ২০ ফেব্রুয়ারি থেকেই সাময়িক নিষেধাজ্ঞায় ছিলেন দেশের হয়ে ১৬ টেস্ট খেলা এই ক্রিকেটার।

বোর্ডের আনা অভিযোগের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল আকমলের। কিন্তু তিনি তা না করার সিদ্ধান্ত নেন। ফলে নিশ্চিত হয়ে যায় যে শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

এই অপরাধে ৬ মাস থেকে আজীবন পর্যন্ত নিষিদ্ধ হতে পারেন বলে শুরুতে গণমাধ্যমে বলা হয়েছিল। তবে আপিল না করায় শাস্তি কম হতে পারে বলেও ধারণা করা হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত সম্ভবত সেটিই হলো।

আগামী ২৯ মে ৩০ বছর পূর্ণ করবেন আকমল। এই বয়সে লম্বা সময় ক্রিকেটের বাইরে থাকার পর আবারও ফেরাটা তার জন্য অনেক কঠিন হবে, তা নিশ্চিতভাবেই বলা যায়।

১৬ টেস্টের পাশাপাশি ১২১ ওয়ানডে ও ৮৪টি টি-টোয়েন্টি খেলা আকমল দেশের হয়ে সবশেষ মাঠে নেমেছিলেন ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি রান আছে তার।

উল্লেখ্য, আইসিসির অ্যান্টি করাপশন কোডের ২.৪.৪ ও ২.৪.৫ ধারায় বলা আছে, যদি কোনো ক্রিকেটার বাজিকরদের বাজে প্রস্তাব জানাতে ব্যর্থ হলে কমপক্ষে পাঁচ বছরের সাজা হবে।

আমারসংবাদ/এআই