সোমবার ০১ জুন ২০২০

১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

স্পোর্টস ডেস্ক

এপ্রিল ২৪,২০২০, ০৬:৩৪

এপ্রিল ২৪,২০২০, ০৬:৩৪

করোনায় ঘরে সিয়াম সাধনার সুযোগ পাচ্ছেন মুসলিম ক্রিকেটাররা

 

বিশ্বজুড়ে থাবা বসিয়েছে করোনা ভাইরাস। বেশিরভাগ দেশ লকডাউনে, চারিদিক স্তব্ধ। করোনা দুর্যোগের মধ্যেই আসলো পবিত্র মাহে রমজান। এমন পরিস্থিতিতে এবার ঘরে বসেই সিয়াম-সাধনায় ব্রত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন বিশ্বের ‍মুসলিম ক্রিকেটাররা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মিডিয়া ও কমিউনিকেশন বিভাগের সিনিয়র ম্যানেজার রাবিদ ইমাম বলেন, ‘যারা রোজা রাখতে চায়, আমি নিশ্চিত তারা সুযোগটা নেবে। ঘরে থেকেই সিয়াম সাধনা ও নামাজ কালামের সুযোগ পাচ্ছে তারা। ক্রিকেটীয় কারণে প্রায়ই রোজা রাখা সম্ভব হয়ে উঠে না তাদের।’

ভারতীয় বাঁহাতি স্পিনার শাহবাজ নাদিম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, ‘এবার আমি রমজান ভালোভাবে পালন করবো। অন্য সময় সেটা আইপিএল কিংবা অন্য কোনো টুর্নামেন্ট খেলার মাঝে পালন করতাম।’

‘তারাবীহ ও অন্যান্য নামাজের জন্য আমি মসজিদে যাবো না, ঘরেই পড়ে নেবো।’

এবারের আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলার কথা নাদিমের। তবে বিশ্বের সবচেয়ে জমজমাট এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লীগ অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গেছে।

ভারতের সাবেক পেসার ইরফান পাঠান বলেন, ‘এ বছর সবাই ঘরে থেকে সিয়াম পালন করবে। আমি ও আমার ভাই (ইউসুফ পাঠান) রোজা রাখবো। খেলাধুলা ও ধারাভাষ্যের ব্যস্তসূচির মাঝেও আমি রোজা রাখতাম। তবে এবার ঘরে থেকেই এটা সম্ভব হচ্ছে। শান্তিপূর্ণ একটি রমজান মাসের জন্য আমি মুখিয়ে।’

প্রায় সারা বছর খেলা থাকায় ক্রীড়াবিদরা ঠিকমতো পরিবারকে সময় দিতে পারেন না। ক্রিকেটার হোক আর ফুটবলারই, জীবনের একটা বড় সময় তাদের কেটে যায় মাঠে। অনেক সময় টিম হোটেল ও অনুশীলন ক্যাম্পই তাদের পৃথিবী। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমও অনেকটা সময় কেড়ে নেয়। অনেকে এজন্য খেলার মাঝে ছুটি নিয়ে পরিবারকে সময় দেন। তবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে এখন ঘরে থাকতে হচ্ছে সবাইকে। এই সময়ে ক্রীড়াবিদদের পরিবারিক বন্ধন আরও মজবুত করার আহ্বান জানিয়েছেন বিশিষ্ট মনোবিদ আলী আজহার খান।

আমারসংবাদ/জেআই