সোমবার ৩০ মার্চ ২০২০

১৬ চৈত্র ১৪২৬

ই-পেপার

বেলাল হোসেন

প্রিন্ট সংস্করণ

মার্চ ২৪,২০২০, ০২:০৯

মার্চ ২৪,২০২০, ০২:০৯

করোনার ফলে ভিডিও ক্লাস চালু করছে মাউশি

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে ইতোমধ্যে দেশের সকল পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। তবে শিক্ষার্থীরা যেনো নিয়মিত পড়াশোনা থেকে পিছিয়ে না পড়ে সে জন্য বিকল্প পন্থায় ক্লাস চালুর উদ্যোগ নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের দিনগুলোতে সংসদ টেলিভিশন চ্যানেলের মাধ্যমে সেরা শিক্ষকদের রেকর্ডিং করা ক্লাস প্রচারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আজ, বুধবার ও বৃহস্পতিবার ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ক্লাস পরীক্ষামূলক চালু হওয়ার কথা।

এ বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য আমার সংবাদকে বলেন, আমাদের প্রস্তুতি চলছে। কাল (মঙ্গলবার) ক্লাস চালু হওয়ার কথা থাকলেও এখনো বলা যাচ্ছে না।

তবে এই সপ্তাহে পরীক্ষামূলক ক্লাস চালু করা হবে। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীরা এখন কার্যত ক্লাস থেকে দূরে আছে। তারা যেনো অনিয়মিত না হয়ে পড়ে এ জন্য ভিডিও ক্লাসের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টার মধ্যবর্তী সময়ে এই ক্লাসগুলো প্রচার করা হবে। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত একেকটি বিষয়ের জন্য মোট ৩৫টি ক্লাস থাকবে।

মাউশি সূত্র জানায়, গত শুক্রবার থেকে ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সেরা শিক্ষকদের নিয়ে শ্রেণিপাঠের ক্লাস রেকর্ডিং করা শুরু হয়। তিনটি স্টুডিওতে এই ক্লাস রেকর্ডিং করা হচ্ছে।

এর মধ্যে একটি স্টুডিও সরকারের শিক্ষাতথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর। এছাড়া ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এবং মোবাইলফোন অপারেটর রবির স্টুডিওতে এসব ক্লাস রেকর্ডিং করা হচ্ছে।

ঢাকার উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ভিকারুননিসা নূন স্কুল ও কলেজ, মতিঝিল সরকারি বালক ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাইস্কুল, মতিঝিল মডেল স্কুল ও কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল ও কলেজসহ সেরা স্কুলের শিক্ষকরা এই লেকচার দেবেন।

সূত্রে আরও জানা যায়, এই প্রক্রিয়ার নাম দেয়া হয়েছে ভেলিডেশন। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি), বাংলাদেশ পরীক্ষা উন্নয়ন ইউনিট (বেডু), শিক্ষা বিশেষজ্ঞ প্রমুখের সমন্বয়ে গঠিত টিম লেকচারগুলো ভেলিডেট বা মূল্যায়ন করবেন।

এরপর তা সম্প্রচারের লক্ষ্যে ছাড়পত্র পাবে। স্কুল না খোলা পর্যন্ত এই লেকচার সম্প্রচারের কাজ চলবে। অর্থাৎ টেলিভিশনেই অব্যাহত থাকবে স্কুলের পাঠদান। এজন্য একদিকে রেকর্ডিং আরেক দিকে ভেলিডেশন ও সম্প্রচার কাজ অব্যাহত থাকবে।

অন্যদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের টেলিভিশনের মাধ্যমে ক্লাস নেয়ার কাজ শুরু করার কথা শোনা গেছে। এখানে প্রাক-প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিকল্প পন্থায় লেখাপড়া চালু রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এছাড়াও ছুটিকালীন সময়ের নির্দেশনা দিয়ে গত ২০ মার্চ শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের উদ্দেশে বিশেষ বার্তা দিয়েছেন মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে অনলাইনে ক্লাস
ইতোমধ্যে বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার কাজ চালানো হচ্ছে বলে জানা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটি, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অন্যতম। আরও কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়েও অনলাইনে ক্লাস চলছে বলে জানা গেছে।

আমারসংবাদ/এসটিএমএ