বৃহস্পতিবার ০৯ এপ্রিল ২০২০

২৬ চৈত্র ১৪২৬

ই-পেপার

মামুনুর রশিদ, ত্রিশাল

ফেব্রুয়ারি ২৫,২০২০, ০৪:১১

ফেব্রুয়ারি ২৫,২০২০, ০৪:১১

মেয়র আনিছকে সভাপতি হিসাবে দেখতে চায় আ.লীগ প্রেমীরা

ময়মনসিংহের ত্রিশালের জননন্দিত নেতা এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ। তিনি ত্রিশাল পৌরসভায় বর্তমানে মেয়র হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ইতি মধ্যে সে দুইবার জনগণের ভোটে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েছেন। আনিছুজ্জামান আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান। তার পিতা মরহুম আবুল হোসেন চেয়ারম্যান ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা।

ছাত্রজীবন থেকেই আনিছুজ্জামান আনিছ সরাসরি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। দুই বার ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।বর্তমানে তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। সেই কারণে তিনি ত্রিশাল উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চলের গ্রামের সাধারন মানুষের নিকট পরিচিত মুখ হিসাবে ব্যাপক পরিচয় লাভ করেছেন। আনিছুজ্জামান ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ করেছেন।

ত্রিশাল পৌরসভার রাস্তাঘাট ড্রেনের ব্যবস্থা ব্রিজ-কালভার্ট সহ নানাবিধ উন্নয়নমূলক কাজ অব্যাহত রয়েছে।পৌর এলাকায় মাদক মুক্ত ও একটি সুন্দর পৌরসভা গড়ার কারিগর। তিনি সকল ওয়ার্ডের নারী পুরুষসহ সব শ্রেণির মানুষের নিকট রয়েছে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। শিক্ষিত বেকার যুবকদের বিভিন্ন কর্মস্থান সৃষ্টি করা সহ বিভিন্ন কারণে তার প্রশংসনীয় উদ্যোগকে মানুষ এখনও ভুলতে পারেনি।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দায়িত্বকালীন অবস্থায় দলীয় সভা-সমাবেশে যোগ দিয়ে নেতা কর্মীদেরকে সাথে নিয়ে সফল করেন সভা-সমাবেশ গুলো। উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি সুয়েল মাহমুদ সুমন বলেন, আনিছুজ্জামান একজন পরীক্ষিত নেতা, তাকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত করলে সংগঠন আরও শক্তিশালী হবে।

পৌর শহরের নং ৬ ওয়ার্ডের ইব্রাহিম খলিল জানান, সভাপতি হিসেবে উপযুক্ত ব্যক্তি মেয়র আনিছ তাকে সভাপতি হিসেবে দেখতে চান।বালিপাড়া মজিবুর রহমান জানান, মেয়র আনিছকে সভাপতি করলে ঝিমিয়ে পড়া কমিটি প্রাণ ফিরে পাবেন।

এছাড়াও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিভিন্ন ইউনিয়নের বেশীর ভাগ নেতাকর্মী ইউনিয়ন চেয়ারম্যানসহ দলটির সমর্থিত কর্মীরা এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ কে সমর্থন জানিয়ে আসছেন। তারা বলছেন আনিছুজ্জামান আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত প্রাণ। আওয়ামীলীগ প্রেমীরা তাকে ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসাবে দেখতে চায়।

আমারসংবাদ/এমআর