শুক্রবার ০৩ এপ্রিল ২০২০

২০ চৈত্র ১৪২৬

ই-পেপার

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেব্রুয়ারি ০১,২০২০, ০৫:০৭

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ১০:০৯

দেশ উন্নতির পথে তার প্রমাণ ভোটার উপস্থিতি কম: আতিকুল

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেছেন, দেশ উন্নতির দিকে যাচ্ছে তার প্রমাণ হলো ভোটার উপস্থিতি কম হওয়া। উন্নত দেশগুলোর দিকে তাকালে দেখবেন যে সেখানে মানুষের ভোট দেয়ার হার কমে থাকে। শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভোটগ্রহণ শেষে বনানীর-১৩ সড়কের নির্বাচন কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, আরো ভোটার আসলে ভালো লাগতো। কিন্তু দেশ উন্নতির দিকে যাচ্ছে, তার প্রমাণ আজকের ভোটারদের উপস্থিতি। বাইরের দেশে ভোটার অনেক কম থাকে। শুক্র-শনি বন্ধ থাকায় অনেকেই ঢাকার বাইরে গেছে, এটাই বাস্তবতা। আরো পড়ুন: ফলাফল যাই হোক মেয়র আমি হয়ে গেছি: ইশরাক আতিক বলেন, ভোটের দিন ভোট দেওয়ার পর থেকে প্রতিটা সেকেন্ড মিনিট ঘন্টা কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছি। সারাদিনে যা দেখেছি তাতে নির্বাচন খুব সুষ্ঠু হয়েছে। আমি শতভাগ আশাবাদী ঢাকাবাসী আমাকে তাদের প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ দেবে। এর চেয়ে বড় কথা যে আওয়ামী লীগ দেশকে স্বাধীনতা দিয়েছে, দেশকে উন্নয়ন, দেশকে লাল সবুজের পতাকা দিয়েছে সে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। তিনি বলেন, নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় দেখেছি জনসভা পথসভা গুলো জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছিল। এখন অপেক্ষা বিজয় দেখার। আশা করছি জয় আমাদের পক্ষে আসবে ইনশাল্লাহ। উত্তরের মেয়র প্রার্থী আতিক আরও বলেন, ভোটে একটি দল হারবে একটি দল জিতবে এটাই বাস্তবতা। কিন্তু একটি অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন আমাদের জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি । জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পেরেছে। এ জন্য নির্বাচন কমিশনকে আন্তরিক ধন্যবাদ। প্রসঙ্গত, অভিযোগ–পাল্টা অভিযোগের মধ্যে দিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কোনোরকম বিরতি ছাড়াই দুই সিটিতে মেয়র ও কাউন্সিলর নির্বাচনের জন্য ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে, ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে ব্যালট পেপারের পরিবর্তে প্রথমবারের মতো কোনো সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পুরো ভোট ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হলো। ডিএসসিসি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং বিএনপির মেয়রপ্রার্থী হিসেবে লড়ছেন ইশরাক হোসেন। অপরদিকে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে মো. আতিকুল ইসলাম এবং বিএনপির মেয়রপ্রার্থী হিসেবে লড়ছেন তাবিথ আউয়াল। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সকাল ৮টায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে ধানমন্ডির ঢাকা সিটি কলেজ কেন্দ্রে তার ভোট দেন। ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস ধানমন্ডির ড. মালেকা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে এবং উত্তরের মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম উত্তরা মডেল টাউন এলাকার নওয়াব হাবিবুল্লাহ স্কুল অ্যান্ড কলেজে ভোট দেন। বিএনপির ঢাকা দক্ষিণের মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেন গোপীবাগ এলাকার শহীদ শাহজাহান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এবং দলের উত্তরের মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল গুলশানের মানারাত ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেন। দুই সিটি নির্বাচনে প্রায় ৫.৪৫ মিলিয়ন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার সুযোগ পাবেন। যেখানে মেয়র পদে লড়ছেন ১৩ জন প্রার্থী। এরমধ্যে উত্তরে ছয়জন এবং দক্ষিণে সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ডিএনসিসি নির্বাচনে মোট ৩৩৪ জন প্রার্থী ৭৩টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ৫৪টি পদে ২৫১ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ১৮টি সংরক্ষিত আসনে ৭৭ জন নারী প্রার্থী রয়েছেন। অন্যদিকে ডিএসসিসি নির্বাচনে ৪১৬ জন প্রার্থী ১০১টি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৭৫টি পদে ৩২৭ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ২৫টি সংরক্ষিত আসনে ৮২ জন নারী প্রার্থী রয়েছেন। আমারসংবাদ/জেআই