শুক্রবার ০৩ এপ্রিল ২০২০

২০ চৈত্র ১৪২৬

ই-পেপার

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেব্রুয়ারি ০১,২০২০, ০৪:১১

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ১০:০৯

ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

কিছু বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টায় ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। নগরপিতা নির্বাচন করতে সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্র ভোটারদের লাইন দেখা যায়। তুলনামূলক ভোটার উপস্থিতি কম হলেও নগর জুড়ে ছিল উৎসবের আমেজ। এবার প্রথমবারের মতো ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট গ্রহণ হয় ইভিএম প্রযুক্তিতে। আধুনিক এই প্রযুক্তিতে সহজেই ভোট দিতে পারলেও আঙ্গুলের ছাপ ও তথ্যে মিল না থাকায় অনেক ক্ষেত্রে ভোটারদের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে। ভোট গ্রহণ শুরুর পর থেকেই বিএনপির পক্ষে অভিযোগ করা হয়, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে সমস্যা হচ্ছে, ঢুকতে পারলেও কোথাও কোথাও বের করে দেয়া হচ্ছে। অনেক কেন্দ্রে ঢুকতেই দেওয়া হচ্ছে না। তবে আওয়ামী লীগের দাবি, নির্বাচন নিয়ে বিএনপির মিথ্যা অভিযোগ তাদের রাজনৈতিক কৌশল। বিএনপির পোলিং এজেন্ট না থাকার বিষয়ে ডিএসসিসি নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন অভিযোগ করে জানান, কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়া হচ্ছে, এজেন্ট থাকবে কোথা থেকে। একই অভিযোগ করেছেন উত্তর সিটির বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিউ আউয়ালেরও। অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ক্ষমতাশীল মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস জানিয়েছেন, বিএনপির সাংগঠনিক ক্ষমতা নেই তাই এজেন্ট দিতে পারে নি। উল্লেখ্য, এবারের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে প্রার্থী হয়েছেন ৬জন। আর কাউন্সিলর পদে ২৫১জন এবং সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৭৭ জন নারী প্রার্থী ৫৪‌টি ‌ওয়া‌র্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ঢাকা দক্ষিণে মেয়র পদে লড়ছেন ৭জন। আর কাউন্সিলর পদে ৩৩৫ জন এবং সংরক্ষিত আস‌নে ৮২ জন নারী প্রার্থী ৭৫টি ওয়া‌র্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া ঢাকার দুই সি‌টি‌তে মোট ভোটার সংখ্যা ৫৪ লাখ ৬৩ হাজার ৪৬৭জন। ঢাকা উত্ত‌রে ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ভোটকক্ষের সংখ্যা ১হাজার ৩১৮টি এবং দক্ষিণ সিটিতে ১ হাজার ১৫০টি ভোটকেন্দ্রে ‌ভোট অনু‌ষ্ঠিত হ‌য়েছে। আমারসংবাদ/এমএআই