বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০

৩০ আষাঢ় ১৪২৭

ই-পেপার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জুন ১৬,২০২০, ০৯:৫৫

জুন ১৬,২০২০, ০৯:৫৫

মাদকাসক্ত বানরের মৃত্যুদণ্ড!

 

২৫০ মানুষকে আক্রমণ করা এক মাতাল বানরকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। কালুয়া নামে এই বানরের আক্রমণে আহতদের মধ্যে এক জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় ও কানপুর চিড়িয়াখানা সূত্র জানায়, উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুর জেলার এক তান্ত্রিক কালুয়া নামক বানরকে পুষতেন। ওই তান্ত্রিক বানর কালুয়াকে নিয়মিত মদ পান করাতেন। ধীরে ধীরে কালুয়া মদের নেশায় বুদ হয়ে পড়ে। মদের আসক্তি চরম পর্যায় পৌঁছায়। হঠাৎ একদিন তান্ত্রিক মারা গেলে বেকায়দায় পড়ে কালুয়া। মদের নেশায় দিন দিন আক্রমণাত্বক হয়ে পড়ে সে।

এই সময় থেকে জানা যায়, গোটা মির্জাপুরের ত্রাস হয়ে ওঠে কালুয়া। একে একে ২৫০ লোকের ওপর আক্রমণ করে মাতাল বানরটি। এতে ভারতের মিডিয়ায় শিরোনাম হয়েছিল সে। পরে দীর্ঘদিনের চেষ্টায় কালুয়াকে ধরতে সমর্থ হয় বন ও চিড়িয়াখানার কর্মীরা। তাকে নিয়ে কানপুর চিড়িয়াখানায় যাওয়া হয়।

চিড়িয়াখানার চিকিৎসক মুহম্মদ নাসির জানান, বেশ কয়েক মাস ধরে আলাদা খাঁচায় কালুয়াকে একলা রাখা হয়। কিন্তু তার আক্রমণাত্মক মনোভাবের পরিবর্তন হয়নি। উল্টো দিনদিন তা বাড়তে থাকে। প্রায় তিন বছর তাকে চিড়িয়াখানায় রাখার পরও কোনো পরিবর্তন হয়নি।

চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, কালুয়াকে এখন ছাড়া হলে আবার সে মানুষের উপর আক্রমণ করবে। তাই তাকে মৃত্যুদণ্ডই দেয়া হচ্ছে।

এর আগে পাকিস্তানে জুয়া খেলায় অংশগ্রহণকারী হিসেবে একটি গাধাকে গ্রেপ্তার করেছিল দেশটির পুলিশ।

আমারসংবাদ/জেআই