বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০

২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

আমার সংবাদ ডেস্ক

এপ্রিল ২১,২০২০, ১০:১৪

এপ্রিল ২১,২০২০, ১০:১৪

প্রসব যন্ত্রণায় ছটফট করছে স্ত্রী, স্বামী অন্য নারীর বিছানায়

নাম তার ক্লোরাল ব্লির। বয়স ৩০ বছর। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বাসিন্দা তিনি। স্টিভেনের নামের এক যুবকের সঙ্গে পাঁচ বছর আগে বিয়ে হয় তার। দাম্পত্য জীবন তাদের সুখের ছিল না। বিয়ের পর থেকেই স্টিভেনের আচরণে সন্দেহ হতো ক্লোরালের।

তবে কাউকে কিচ্ছুই বলেননি তিনি। এমনকি স্টিভেনকেও বুঝতে দেননি। তবে আর পারলেন না চেপে রাখতে। নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক প্রোফাইলে লিখে গোটা বিশ্বকে জানিয়ে দিলেন কিভাবে দিনের পর দিন তার স্বামী ঠকিয়ে গিয়েছেন।

ফেসবুকে ক্লোরাল লেখেন, তখন আমি প্রসব যন্ত্রণায় ছটফট করছি। চিত্‍কার করে আমার স্বামীকে ডাকছি। অনেক কষ্টে যখন বেডরুম থেকে উঠে এসে ড্রয়িং রুমে আসি, তখন দেখি বিছানায় এক নারীর সঙ্গে শুয়ে আছে। চোখের ওপর এই দৃশ্য দেখে আমি অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলাম। সে আমার সুন্দর একটি দিনকে সবচেয়ে খারাপ দিনে রূপান্তর করে দিয়েছিল।

ক্লোরাল বলেন, এর আগেও আমি অনেক প্রমাণ পেয়েছি। জেনে ছিলাম আমার স্বামী আমাকে লুকিয়ে প্রায় ৩০ জনের সঙ্গে বিছানায় গেছে। সে একদিন আমার সঙ্গে বলেছেও যে ৩০ জন নারীর সঙ্গে সে শুয়েছে।

সম্প্রতি এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন ক্লোরা। এর আগে তিনি আরো এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। ক্লোরা স্টিভেনকে ডিভোর্স দিয়ে একাই ছেলেকে বড় করছেন। যে মানুষ এতো জনের সঙ্গে এরকম কাজ করতে পারে তার সঙ্গে কোনো সম্পর্ক রাখতে চাননি তিনি। তবে স্টিভেন প্রায়ই সন্তানদের দেখতে যায়।

ক্লোরাল বলেন, স্টিভেন প্রায়ই সন্তানদের সঙ্গে দেখা করতে আসে। বাবা হিসেবে আমার স্বামী ভালো হলেও স্বামী হিসেবে সবচেয়ে ভয়ংকর।

সূত্র: সান।

আমারসংবাদ/এআই