শনিবার ০৬ জুন ২০২০

২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

সরাইল (ব্রাহ্মনবাড়িয়া) প্রতিনিধি

এপ্রিল ০৯,২০২০, ১২:৩০

এপ্রিল ০৯,২০২০, ১২:৩০

গ্রামে ঢুকতে লাগবে হাত ধুয়া, প্রবেশদ্বারে ব্যারিকেড

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার উচালিয়াপাড়া গ্রামের যুবকদের উদ্যেগে গ্রামের মোট পাঁচটি প্রবেশদ্বার বাঁশ কাঠ দিয়ে গাড়ি ঢোকা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে, করা হয়েছে সাবান দিয়ে হাত ধুয়া ও জীবানুনাশক স্প্রে ছিটানোর ব্যাবস্থা। অপরিচিত বা বহিরাগত কোন ব্যাক্তি আসলেই বাধ্যতামূলক করা হয়েছে হাত ধুয়াকে। যে কোন ব্যাক্তি গ্রামের ভিতর প্রবেশ করতে হলে অবশ্যই তাকে আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে পরে ঢুকতে হচ্ছে, অন্যথায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে ঔ যুবকরা।

যুকদের মূখপাত্র সজল ও জুয়েল বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত এবং অবাদে চলাফেলা বন্ধ করে সরকারের নির্দেশনাকে বাস্তবায়ন করতেই আমাদের নিজেদের শ্রম, অর্থ আর গ্রামের মুরুব্বীদের পরামর্শে করেছি এই ব্যবস্থা।

এদিকে উপজেলা সদরের কাচারিপাড়া, সকাল বাজার, চানমনিপাড়া, বড্ডাপাড়া, কুট্টাপাড়া, কালীকচ্ছ, শাহাজাদাপুর, পানিশ্বর সহ বেশ কটি এলাকার প্রবেশ পথে দেয়া হয়েছে বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড রিকসা, সিএনজি কিছুই ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না এলাকায়। কারো জরুরী প্রয়োজনে পায়ে হেঁটে যাচ্ছে পকেট ডেইট দিয়ে।

এলাকার লোকজন বলছে আমরা নিজেদের জীবন এবং এলাকার সবাইকে নিরাপদ রাখতে নিজেরাই লকডাউন করে দিয়েছি।

সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ সাহাদাত হোসেন টিটো বলেন, করোনা ভাইসাসের প্রকোপ যেভাবে দিন দিন বেড়েই চলেছে তাকে ঠেকাতে বিভিন্ন এলাকায় যুকরা বা এলাকাবাসী যে উদ্যেগ নিয়েছে তা অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার, তবে অবশ্যই সরকার নির্দেশিত যে সব জরুরী সার্ভিস রয়েছে সেগুলিকে যেন যাতায়তের সুযোগ করে দেয়া হয়, যেমন- কোন অসুস্থ ব্যাক্তির গাড়ি, ঔষধ বা খাবার সামগ্রীর পরিবহন, ডাক্তার ও সাংবাদপত্রের গাড়ি বা প্রশাসনিক যেকোন গাড়ি, এগুলি বাদে বাকি যেকোন যানবাহন অবশ্যই বন্ধ করা যাবে প্রয়োজনে পুলিশের যেকোন সহযোগিতা লাগে আমরা ২৪ ঘন্টায় রয়েছি প্রস্তুত।

আমারসংবাদ/কেএস