সোমবার ৩০ মার্চ ২০২০

১৬ চৈত্র ১৪২৬

ই-পেপার

নিজস্ব প্রতিবেদক

মার্চ ২৫,২০২০, ১০:৪৯

মার্চ ২৫,২০২০, ১১:০৪

করোনাভাইরাস: এবার সিলেটে পত্রিকা ছাপানো বন্ধ

এবার নভেল করোনাভাইরাসে কারণে সিলেটের স্থানীয় সংবাদপত্রের প্রকাশনা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

সিলেট থেকে প্রকাশিত দৈনিক পত্রিকাগুলোর সম্পাদকরা সিদ্ধান্ত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) থেকে তারা স্থানীয় সব পত্রিকার প্রকাশনা স্থগিত রাখবেন।

মঙ্গলবার রাতে দৈনিক সিলেট মিররের সম্পাদক আহমেদ নূর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সেখানে বলা হয়, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় এবং “পত্রিকা বিপণনজনিত সমস্যাসহ উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) থেকে সিলেটের দৈনিক পত্রিকাসমুহ প্রকাশ আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।”

সিলেটের ডাকের অনলাইন সংস্করণে পত্রিকা ছাপা বন্ধ রাখার খবরস্থানীয় দৈনিকগুলোর সম্পাদকরা মঙ্গলবার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানানো হয়।

এর আগে ২৬ মার্চ থেকে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত রাজশাহীতে জাতীয় ও স্থানীয় সংবাদপত্র বিলি বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

রাজশাহী মহানগর সংবাদপত্র শ্রমিক ইউনিয়ন, এজেন্ট ও পত্রিকা হকার্সরা জাতীয় ও স্থানীয়ভাবে প্রকাশিত সকল দৈনিক পত্রিকা, সাপ্তাহিক ও সাময়িকপত্র সরবরাহ, গ্রহণ ও বিলি-বণ্টন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

মঙ্গলবার রাজশাহী মহানগর সংবাদপত্র শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে সংবাদপত্র শিল্পে। ক্ষুদ্র ও মাঝারি ধরনের পত্রিকাগুলো বন্ধের পর্যায়ে চলে গেছে।

শীর্ঘস্থানীয় দৈনিক পত্রিকাগুলোর প্রকাশ সংকুচিত অথবা শুধু অনলাইন ভার্সন চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে।

তবে ২৬ মার্চ নিউজপেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (নোয়াব) নেতারা সভা করে এসব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

অনেক দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে লাশের মিছিল লম্বা হচ্ছে। এ কারণে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া অধিকাংশ দেশের সব ধরনের শিল্পপ্রতিষ্ঠান লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশেও একই পরিস্থিতি।

প্রভাব পড়েছে দেশের সংবাদপত্রেও। কাগজের সংবাদপত্রের মাধ্যমে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হতে পারে এই আতঙ্কে অনেকে পত্রিকা কেনা ও পড়া বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে ছোট সংবাদপত্র প্রায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

আমারসংবাদ/এআই