শনিবার ০৬ জুন ২০২০

২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি

মার্চ ২১,২০২০, ০৩:২০

মার্চ ২১,২০২০, ০৩:২০

কেরানীগঞ্জের বাজারে ছদ্মবেশে ম্যাজিস্ট্রেট, ব্যবসায়ীর কারাদণ্ড

ঢাকার কেরানীগঞ্জে রোহিতপুর বাজারে ছদ্মবেশে অভিযান চালিয়ে চালের বাজার নিয়ন্ত্রণকারী মেসার্স এম এম এন্টারপ্রাইজ এর এক কর্মচারীকে ১০ দিনের বিমাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রম্যামাণ আদালত।

শনিবার (২১মার্চ) সকালে কেরানীগঞ্জ রাজস্ব সার্কেল সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মেসার্স এম এম এন্টারপ্রাইজ (মতিন বেপারীর চালের আড়ৎ) এর ম্যানেজার কাম বিক্রেতা খালেদ হাওলাদারের ছেলে ইমরান হোসেন (৩০) কে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয়।

এর আগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গ্রাহক সেজে বাজার ঘুরে দেখেন এবং এক লোকের মাধ্যমে ২১শত টাকায় এক বস্তা চাল ক্রয় করেন যা চলতি বাজার মূল্যের চেয়ে ৪০০/৪৫০ টাকা বেশি। অতঃপর তিনি রোহিতপুর বাজার ঘুরে পেঁয়াজ, আদা, রসুনের দাম দেখেন।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পেঁয়াজ রসুনের দাম গতকালের চেয়ে অনেক কমেছে। গতকাল ৮০/৯০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজ আজ বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। তবে বাজারে চালের চাবি কাঠি এম এম এন্টারপ্রাইজ এর হাতে হওয়ায় চালের দাম অপরিবর্তিতই ছিলো। এর আগে সকাল ১০ টায় কলাতিয়া বাজার ঘুরে দেখেন তিনি। সেখানকার পরিস্থিতি উন্নত হয়েছে বলেও জানান তিনি।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল বলেন, আমাদের কাছে তথ্য ছিলো পুরো বাজার এমন কি আশেপাশের কয়েকটি বাজারের চালের নিয়ন্ত্রণ এই এম এম এন্টারপ্রাইজ এর হাতে। আমরা গতকাল এই প্রতিষ্ঠানকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে সতর্ক করে দিয়ে যাই কিন্তু আজো তারা একই কাজে লিপ্ত ছিলো। তাই মালিককে না পাওয়ায় দোকানের ম্যানেজারকে ১০ দিনের কারাদণ্ড দিয়ে জেল হাজতে পাঠিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, অভিযান চলছে এবং প্রতিদিন চলবে। অতিরিক্ত দামে চাল, পেয়াজ, তেল বিক্রি করলে আপনারা সরাসরি উপজেলা প্রশাসনকে জানান। আর আপনারা স্লিপ ছাড়া মালামাল নিবেন না এবং প্রয়োজনের অতিরিক্ত পণ্যও কিনবেন না।

আমারসংবাদ/এমআর